লিনাক্স ইস্কুল_৫ঃ লিনাক্স ডেক্সটপ এনভাইরোমেনট (Desktop Environment)

প্রথমেই সবাইকে জানাই নতুন বছরের আগাম শুভেচ্ছা , আশা করি নতুন বছর সবার জন্য মঙ্গলময় হবে।

আজ লিনাক্স_ইস্কুল এর ৫ম পর্ব। বরাবরের মতো এবারও আমি সবাইকে আগের পর্ব গুলো(পর্ব -১, পর্ব – ২, পর্ব – ৩, পর্ব – ৪) না পড়ে থাকলে ,পড়ে আসার জন্য অনুরধ করবো।

আজ আমারা কথা বলবো লিনাক্স Desktop Environment নিয়ে। আশা করি কিছু হলেও জানতে পারবেন।তাহলে আর দেরি না করে শুরু করা যাক।

18ixmblbauio1jpg

                                          Desktop Environment  কী ? 

আসলে Desktop Environment (সংক্ষেপে : DE)  হচ্ছে যেকোনো অপারেটিং সিস্টেম এর Graphical User Interface(GUI) বা GUI Shell.সহজ করে বললে, অপারেটিং সিস্টেম এর নিজস্ব চেহারা হচ্ছে Desktop Environment. প্রত্যেকটি Desktop Environment রয়েছে এর নিজস্ব কিছু প্রোগ্রাম এর সমষ্টি। মোটকথা আপনার  OS কে ব্যাবহার উপযোগী করাই হচ্ছে Desktop Environment এর কাজ। Desktop Environment এর ওপর ব্যাবহারকারীর Using Experience এর অনেকটাই নির্ভর করে।

*Desktop Environment কে কিন্তু Theme এর সাথে তুলনা করা চলে না।

                           Desktop Environment কী  শুধু লিনাক্স এই আছে ?

না, সব OS এই Desktop Environment আছে। তবে লিনাক্স এ Desktop Environment পরিবর্তন করা যায়, কিন্তু অন্যান্য OS এ তা যায় না। তাই লিনাক্স এ চাইলেই আপনি প্রায় ৫০ টি(জনপ্রিয়) Desktop Environment এর মধ্যে থেকে যেকোনো Desktop Environment নির্বাচন করতে পারবেন।

কিছু উল্লেখযোগ্য লিনাক্স  Desktop Environment – 

1.KDE
2.Gnome
3.Unity
4.Cinnamon
5.Pantheon
6.XFCE
7.LXDE
8.LXQT
9.Budgie
10.Mate …….আরও অনেক।

আমারা আজ শুধু মাত্র KDE,Gnome ও Unity নিয়ে কথা বলবো

                                                              KDE

KDE হচ্ছে আমার দেখা সবথেকে Modern ও Advanced Desktop Environment. KDE তে বেশকিছু Built-In Feature আছে যা User কে দেবে তার OS এর ওপর সর্বময় ক্ষমতা । KDE আমার বাক্তিগত পছন্দ।

এর পূর্ণরূপ : K Desktop Environment.

Based On: QT Framework.

Latest Stable Version : 5.8

                                  download                   400px-mascot_20140702_konqui-original
Founded October 14, 1996; 20 years ago
Founder Matthias Ettrich
Type Community
Focus Free software
Products KDE Plasma, KDE Frameworks, KDE Applications, Calligra Suite, KDevelop, digiKam, Amarok, etc.
Method Artwork, development, documentation, promotion, and translation.
Slogan Experience Freedom!
Website kde.org

কিছু screenshot – 

manjaro-login
KDE Login Screen
kde-terminal
KDE Terminal
kde-filemanager
KDE File Manager
kde-desktop
KDE Desktop

ইতিবাচক দিকসমূহ  – 

১। মনমুগ্ধকর ও Modern UI.
২। ইচ্ছেমত Customization এর সুবিধা।
৩। শক্তিশালী ও User Friendly প্রোগ্রাম এর সমাহার।
৪। খুবই সক্রিয় ও অভিজ্ঞ Development Team দ্বারা পরিচালিত।

নেতিবাচক দিকসমূহ – 

১। দুর্বল Hardware এর জন্য বেশি উপযোগী নয়।
২। মাঝে-মধ্যে  Crash করতে পারে।

KDE Based কিছু  Distro –  KDE Neon, Kubuntu, KaOsx, Manjaro KDE, Antergos KDE,Chakra.

                                                              Gnome

সহজ – সরলতা ও উৎপাদনশীলতা এর ওপর গুরুত্ব দিয়ে তৈরি করা হয়েছে Gnome Desktop Environment . আর সে কারনেই , Gnome Desktop Environment অনেক লিনাক্স  ব্যাবহারকারীর প্রথম পসন্দ । নিম্নে Gnome DE সম্পর্কে কিছু তথ্য উপস্থাপন করা হল –

                                                        gnome_sh-600x600.png
Developer(s) The GNOME Project
Initial release March 3, 1999; 17 years ago[1]
Stable release 3.22.2 (9 November 2016; 44 days ago[2]) [±]
Preview release 3.23.2 (23 November 2016; 30 days ago[3]) [±]
Repository git.gnome.org/browse/
Development status Active
Written in C, C++, Vala, Python, JavaScript[4]
Operating system Unix-like using Wayland or X11
Available in 40 languages[5]
Type Desktop environment
License GPL, LGPL[6]
Website www.gnome.org

কিছু Screenshot – 

gnome-terminal
Gnome Terminal
gnome-dash
Gnome DashBoard
gnomefm
Gnome File Manager
gnome-desk
Gnome Desktop

ইতিবাচক দিকসমূহ  – 

১। Simple,Clean & Easy UI.
২। GTK Based.
৩। শক্তিশালী ও User Friendly প্রোগ্রাম এর সমাহার।
৪।Extension ব্যাবহার এর সুবিধা আছে।
৫। অত্যন্ত Stable.

নেতিবাচক দিকসমূহ – 

১। KDE এর মতো অতটা Customizable না ।
২। KDE হতে অপেক্ষাকৃত ধীরগতির।

Gnome Based কিছু  Distro – Ubuntu Gnome, Antergos Gnome, Aparcity OS, Debian, Kali.

                                                              Unity

Unity হচ্ছে বিশ্বের সবথেকে জনপ্রিয় Linux Distribution Ubuntu এর Default Desktop Environment . নিম্নে Unity DE সম্পর্কে কিছু তথ্য উপস্থাপন করা হল –

                        Unity_logo.svg.png                   unnamed
Unity 7.4, with the launcher displayed, running on Ubuntu 16.04.
Developer(s) Canonical Ltd., The Ayatana Project[1] contributors
Initial release 9 June 2010; 6 years ago[2]
Stable release
7.5[3] / 25 May 2016; 6 months ago[3]
Repository code.launchpad.net/unity
Development status Current
Written in Unity 2D: C++, JavaScript, QML
2.07.4: C, C++, Python, Vala[4]
8: C++ and QML[5]
Operating system Ubuntu Desktop
Ubuntu TV
Ubuntu Touch
Type
License GNU GPL v3, GNU LGPL v3
Website unity.ubuntu.com
launchpad.net/unity

*ইহা কিন্তু Unity Game Engine নয়।

কিছু Screenshot – 

Image unitydes.png
Desktop
unity-terminal
Unity Terminal
image-unitystr
Unity Search
image-unityfm
Unity File Manager
image-logu
Login Screen

ইতিবাচক দিকসমূহ  – 

১। Modern user Interface.
২। বৃহৎ User Community .
৩। অত্যন্ত Stable.
৪। Gnome Based.

নেতিবাচক দিকসমূহ – 

১। KDE ও Gnome  এর মতো অতটা Customizable না ।
২। KDE ও Gnome  হতে অপেক্ষাকৃত ধীরগতির।

Unity Based কিছু  Distro – Ubuntu.

আপনার তাহলে কোন Desktop Environment টি পছন্দ হল ?

তথ্য সংগ্রহে ঃ  Wikipedia , Google .

আজ তাহলে এখানেই ইতি টানলাম, নতুন বছরে আবার কথা হবে ।

One thought on “লিনাক্স ইস্কুল_৫ঃ লিনাক্স ডেক্সটপ এনভাইরোমেনট (Desktop Environment)

Add yours

Leave a Reply

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

w

Connecting to %s

Powered by WordPress.com.

Up ↑

%d bloggers like this: